ঢাকার বায়ুমান উদ্বেগজনক – U.S. Bangla News




ঢাকার বায়ুমান উদ্বেগজনক

ইউ এস বাংলা নিউজ ডেক্স:-
আপডেটঃ ১৯ ডিসেম্বর, ২০২২ | ৯:১৮
গত পাঁচ দশকে উন্নয়নের বিভিন্ন সূচকে দেশের অবস্থান ইতিবাচক হলেও আন্তর্জাতিক মহলে বাংলাদেশ দূষিত বায়ুর দেশ হিসাবে পরিচিতি পাওয়ার বিষয়টি দুঃখজনক। এ বিষয়টি বহুদিন ধরে আলোচনায় থাকলেও পরিস্থিতির উন্নয়নে কর্তৃপক্ষের জোরালো তৎপরতা লক্ষ করা যাচ্ছে না। ইটভাটাসহ বিভিন্ন উৎস সারা দেশে দূষণ ছড়াচ্ছে। বস্তুত বায়ুদূষণের কারণগুলো চিহ্নিত হলেও সমস্যার সমাধানে জোরালো পদক্ষেপ না নেওয়ার বিষয়টি উদ্বেগজনক। নির্মল পরিবেশ গড়ে তুলতে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া না হলে আমাদের অর্জনগুলো কতটা টেকসই হবে, এ নিয়ে শঙ্কা থেকেই যায়। উদ্বেগজনক খবর হলো, বিশ্বের দূষিত শহরের তালিকায় বাতাসের ‘খুব অস্বাস্থ্যকর’ মান (শহরটির এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স স্কোর ২৩৮; ১৭ ডিসেম্বর সকাল) নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ঢাকা।

২০১ থেকে ৩০০-এর মধ্যে থাকা একিউআই স্কোরকে ‘খুব অস্বাস্থ্যকর’ বিবেচনা করা হয়। তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছে পাকিস্তানের লাহোর; শহটির স্কোর ২৬৪। ঢাকা দীর্ঘদিন ধরে বায়ুদূষণের সমস্যায় জর্জরিত। এর বাতাসের মান সাধারণত বর্ষাকালে কিছুটা উন্নত থাকলেও শীতকালে অস্বাস্থ্যকর হয়ে যায়। রাজধানীতে বায়ুদূষণের প্রধান কারণ যানবাহনের ধোঁয়া এবং ধুলাবালি। মাত্রাতিরিক্ত ব্যক্তিগত গাড়ি, উন্নত গণপরিবহণ ব্যবস্থা না থাকার কারণে এ শহরে বায়ুদূষণ সমস্যা দিন দিন প্রকট আকার ধারণ করছে। এ অবস্থায় জরুরি ভিত্তিতে রাজধানীতে কালো ধোঁয়া সৃষ্টিকারী যানবাহন চলাচল বন্ধ করার পদক্ষেপ নিতে হবে। বায়ুদূষণের কারণে দেশ কতটা ক্ষতির শিকার তা দেশি-বিদেশি বিভিন্ন সংস্থার প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে। দেশের বিভিন্ন শহরে এখনো আধুনিক বর্জ্য

ব্যবস্থাপনা গড়ে উঠেনি। আগুন দিয়ে বর্জ্য পোড়ানোর কারণে প্রতিনিয়ত শহরগুলোর পরিবেশ দূষিত হচ্ছে। যেহেতু সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবনযাপনের অন্যতম উপাদান নির্মল পরিবেশ, সেহেতু এ বিষয়ে উদাসীন থাকার কোনো সুযোগ নেই। দেশে পানিদূষণ ও অন্যান্য দূষণের বিষয়টিও বহুল আলোচিত। পানিদূষণের কারণে মারাত্মক দূষিত পদার্থও আমাদের খাদ্যচক্রে মিশে যাচ্ছে। ফলে মানুষ বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। যাদের অতিরিক্ত লোভের কারণে দূষণ কমানো যাচ্ছে না, তাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে দেরি করা হলে দেশের উন্নয়নের গতি কী ধরনের হুমকির মুখ পড়বে, তা-ও বহুল আলোচিত। সরকারের বিভিন্ন বিভাগ ও কর্তৃপক্ষের মধ্যে সমন্বয় না থাকলে দূষণরোধে সুফল পাওয়ার ক্ষেত্রে অনিশ্চয়তা দেখা দিতে পারে। দূষণ পরিস্থিতির উন্নয়নে প্রকল্প

বাস্তবায়নের পাশাপাশি দেশের সাধারণ মানুষকেও নির্মল পরিবেশ গড়ে তোলার কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত করতে হবে।
ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
কমছে জ্বালানি তেলের দাম মালদ্বীপের কাছে সামরিক ঘাঁটি বানাবে ভারত আপনারা আজকের এই ছবিটা তুলে রাখুন: ড. ইউনূস ইসরাইলি ট্যাংকের চাপায় নিহত ফিলিস্তিনি একটি ভবন নিরাপদ কি না, যেসব বিষয় দেখে বোঝা যাবে ভোট দেননি মাওলানা ফজলুর রহমান, বললেন এই সংসদ কারচুপির ফসল যেভাবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হলেন শাহবাজ পাকিস্তানে ভারী বৃষ্টি ও তুষারপাতে ২৯ জনের মৃত্যু সিঙ্গাপুর যাচ্ছেন মির্জা ফখরুল প্রধানমন্ত্রী হয়ে প্রতিশ্রুতির ফুলঝুড়ি শাহবাজের এলপি গ্যাসের দাম আরও বাড়ল জাতীয় পরিষদে পিএমএল-এন দলের সংসদীয় নেতা খাজা আসিফ আওয়ামী লীগই প্রভুদের মোসাহেবি করে: রিজভী মাওলানা লুৎফুর রহমানের জানাজা কখন জানাল পরিবার লিয়নের ঘূর্ণিতে ঘরের মাঠেই পরাস্ত নিউজিল্যান্ড ৯৯৯ এ কলে নাগরদোলায় আটকে থাকা ১৫ জন উদ্ধার নওয়াজ-জারদারি কখনোই দেশের ক্ষতি করেননি: শাহবাজ বাইডেনের চেয়ে ট্রাম্পের নেতৃত্বে বেশি আস্থা মার্কিনিদের সরকার আরও দুর্নীতি করতে বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে: ১২ দল মানুষ ও দেশের জন্য কাজ করতে চাই: নতুন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী