হয়রানি রোধে পর্যটক সাজল পুলিশ, অতঃপর…

অথর
নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :৫ আগস্ট ২০২২, ৫:৩৯ অপরাহ্ণ
হয়রানি রোধে পর্যটক সাজল পুলিশ, অতঃপর…

কক্সবাজারে প্রতিদিন ভোরে বাস ঢুকতেই পর্যটকদের নিয়ে রীতিমতো টানাহেঁচড়া শুরু করে দেন পর্যটন জোনের দালাল চক্রের সদস্যরা। এতে একপ্রকার অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন কক্সবাজার ভ্রমণে আসা পর্যটকরা।

এবার দালালদের দৌরাত্ম্য ঠেকাতে মাঠে নেমেছে টুরিস্ট পুলিশ। শুক্রবার ভোরে পর্যটক সেজে দালাল চক্রের ১৯ জন সদস্যকে আটক করেছে কক্সবাজার টুরিস্ট পুলিশ। অভিযানের নেতৃত্ব দেন কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউল করিম।

আটকৃত হলেন- জাফর আলম (৩৮), মো. আব্দুলাহ (১৮), ইসমাইল (২৪), ইব্রাহীম (৩৭), নুর আলম (২৬), চাঁদ মিয়া (১৯), নজু আলম (৩৫), রুবেল (২৬), জুয়েল মিয়া (৩২), সাদেকুর (২৬), সৈয়দ নুর (৩০), সাহিদ (২৬), হেলাল উদ্দিন (৪০), সাগর (২৩), গিয়াস উদ্দিন (৩৩), সৈয়দ আলম (৩৬), মো. হোসেন (৪৭), রবিউল হাসান (২০), ও ইমরান (২১)।

টুরিস্ট পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার ভোর ৫টা থেকে সমুদ্র শহর কক্সবাজারে প্রবেশ করতে শুরু করে দূরপাল্লার বাস। এসব বাসের যাত্রী হয়েই শহরের একটু বাইরে থেকেই পর্যটকের বেশ ধরে আসে কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের সদস্যরা। শহরের কলাতলী ডলফিন মোড়ে এসে গাড়ি থেকে নামতেই পর্যটক ভেবেই তাদের নিয়ে টানাহেঁচড়া শুরু করে পর্যটন জোনের দালাল চক্রের সদস্যরা। তখনই ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার শহরের কলাতলীর হোটেল মোটেল জোনের বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে ১৯ জন দালালকে আটক করে।

কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউল করিম বলেন, শুক্রবার ভোর ৫টা থেকে ৭টা পর্যন্ত ট্যুরিস্ট পুলিশ কলাতলীর ডলফিন পয়েন্টে পর্যটকদের হয়রানিকারী দালাল চক্রের বিরুদ্ধে একটি অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় ১৯ জন দালালকে আটক করা হয়। জব্দ করা হয় তাদের ১৪টি অটোরিকশা। আটকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত রয়েছে।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই পর্যটকরা অভিযোগ করে আসছেন যে, ডলফিন পয়েন্টে অটোরিকশা চালকসহ বেশকিছু দালাল চক্র পর্যটকদের নানাভাবে হয়রানি, ব্ল্যাকমেইলিং, জোর করে বিভিন্ন হোটেলে নিয়ে যাওয়া, পর্যটকদের মালামাল ছিনতাই, ইভটিজিং করে আসছে। এমনকি ধর্ষণের মতো ঘটনার সঙ্গেও তারা জড়িত।

এসব দালাল চক্রের সদস্য ও অপরাধ কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের ধরতে ট্যুরিস্ট পুলিশ অভিযান অব্যাহত থাকবে। পর্যটকদের হয়রানি করা কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন টুরিস্ট পুলিশের এই কর্মকর্তা।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।