‘হংকং ফ্লুতে’ আক্রান্ত হয়ে ভারতে প্রাণ গেল ২ জনের – U.S. Bangla News




‘হংকং ফ্লুতে’ আক্রান্ত হয়ে ভারতে প্রাণ গেল ২ জনের

ইউ এস বাংলা নিউজ ডেক্স:-
আপডেটঃ ১০ মার্চ, ২০২৩ | ৮:৩১
এইচ৩এন২ ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের সংক্রমণের জেরে ভারতে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের একজন দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য হরিয়ানার এবং দ্বিতীয়জন দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্ণাটকের বাসিন্দা। খবর এনডিটিভির। সরকারি তথ্য বলছে, নতুন আসা এ ভাইরাসটির সংক্রমণে এই প্রথম মৃত্যু ঘটল ভারতে। শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে ‘হংকং ফ্লুতে’ (এটি ‘হংকং ফ্লু’ নামেও পরিচিত) আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বর্তমানে প্রায় ১০০ জন। ভারতের সর্বোচ্চ মেডিকেল গবেষণা সংস্থা অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সেসের (এআইআইএমস) তথ্য অনুযায়ী, হংকং ফ্লু’র জন্য দায়ী এইচ৩এন২ এবং এইচ১এন১— দু’টি ভাইরাস। ভারতে শনাক্ত হওয়া রোগীদের নমুনায় দুই ধরনের ভাইরাসেরই উপস্থিতি পাওয়া গেছে। ৯০ জনের নমুনায় পাওয়া গেছে

এইচ৩এন২ ভাইরাস এবং ৮ জনের নমুনায় মিলেছে এইচ১এন১ ভাইরাস। যে দুজনের মৃত্যুর সংবাদ শুক্রবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নিশ্চিত করেছে তাদের মধ্যে কর্ণাটকে মৃত ব্যক্তির সম্পর্কে কিছু তথ্য জানা গেছে। ওই ব্যক্তির নাম হাসান। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি তিনি এই রোগের উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন এবং ৬ দিন পর ১ মার্চ মারা যান। ৮২ বছর বয়স্ক হাসান হংকং ফ্লুর উপসর্গ ছাড়াও ডায়াবেটিস ও উচ্চরক্তচাপের রোগী ছিলেন। চলতি বছর শীতের শেষ দিকে ভারতে নতুন এই ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসটির সংক্রমণ শুরু হয়। এই রোগের উপসর্গগুলোর সঙ্গে ইনফ্লুয়েঞ্জা ও কোভিডের বেশ মিল আছে। উপসর্গগুলো হলো— কাশি, জ্বর, শ্বসকষ্ট, বুকে কফ জমে জাওয়া, বমি বমি ভাব, গলাব্যথা, শরীরব্যাথা এবং

ডায়রিয়া। এসব উপসর্গ প্রায় এক সপ্তাহ স্থায়ী হয়। তারপর রোগী হয় সুস্থ হয়ে উঠতে থাকেন, নয়তো গুরুতর অসুস্থতার দিকে ধাবিত হতে থাকেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, ভারতে এতদিন সর্দিজ্বর বা ইনফ্লুয়েঞ্জার জন্য দায়ী বলে শনাক্ত হওয়া ভাইরাসগুলোর তুলনায় অনেক শক্তিশালী এইচ৩এন২ এবং এইচ১এন১ নামের এই দু’টি ভাইরাস এবং এগুলোর সংক্রমণের ফলে যেসব উপসর্গ দেখা দেয়, সেগুলোও সাধারণ ইনফ্লুয়েঞ্জার চেয়ে অনেক ভোগান্তিকর হয়ে ওঠে রোগীদের জন্য। যাদের প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল, তারা এই ইনফ্লুয়েঞ্জায় আক্রান হলে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ছাড়া আর কোনো উপায় থাকে না। প্রচলিত ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসগুলোর তুলনায় এইচ৩এন২ এবং এইচ১এন১ ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়ার ক্ষমতাও অনেক বেশি। ভারতের চিকিৎসা গবেষণা সংক্রান্ত অপর প্রতিষ্ঠান দ্য ইন্ডিয়ান কাউন্সিল

অব মেডিকেল রিসার্চের বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, করোনা প্রতিরোধের ক্ষেত্রে যে দুটি স্বাস্থ্যবিধি— সাবান বা জীবাণুনাশক দিয়ে হাত ধোয়া এবং মাস্ক পরিধান— সেগুলো এই রোগের বিস্তার ঠেকাতেও কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে।
ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
দেশের যত অপরাধ তার সবই করে বিএনপি: প্রধানমন্ত্রী ইরানের বিরুদ্ধে ইসরাইলের হামলা, যা বলল যুক্তরাষ্ট্র ইসরাইলের হামলায় ইরানে বিমান চলাচল বন্ধ, ইরাকে ব্যাপক বিস্ফোরণ চলে গেলেন প্রথম পতাকার নকশাকার শিব নারায়ণ দাশ ইসরাইলের পাল্টা হামলার ড্রোনকে আকাশেই ধ্বংস করল ইরান কেনিয়ায় হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে সামরিক বাহিনীর প্রধানসহ নিহত ১০ ডিপজলের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ আনলেন সাদিয়া মির্জা ইসরাইলের পাল্টা হামলার বিষয়ে যা বলল ইরান ডিপজলের বিরুদ্ধে ভোটারদের টাকা দেওয়ার অভিযোগ কৃষক লীগের আজ ৫২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী দ্বন্দ্ব-গ্রুপিং ও সিনিয়র নেতাদের নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য রোধে কঠোর হচ্ছে বিএনপি আ.লীগ বিরোধী দল দমনে বিশ্বাস করে না: ওবায়দুল কাদের ইসরায়েলের হামলা, আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা সক্রিয় করল ইরান পদ্মায় বন্ধুদের সঙ্গে গোসলে নেমে লাশ হলেন যুবক প্রাকৃতিক সম্পদের মূল্য হিসাব করবে বিবিএস জাতিসংঘে ফিলিস্তিনের পূর্ণ সদস্যপদ আটকে দিল যুক্তরাষ্ট্র ইরানে পাল্টা ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে ইসরাইল চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ভোটগ্রহণ শুরু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভবিষ্যৎ বাংলাদেশ গড়ার কাজ শুরু করেছেন: অর্থমন্ত্রী মাহমুদ আলী উপজেলায় প্রার্থী হতে পারবেন না মন্ত্রী-এমপিদের স্বজনরা: শেখ হাসিনা