রেস্তোরাঁয় খেতে গিয়ে আইসোলেশনে রোহিতরা

অথর
নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :৩ জানুয়ারি ২০২১, ৯:৫০ পূর্বাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 38 বার
রেস্তোরাঁয় খেতে গিয়ে আইসোলেশনে রোহিতরা

একদিন আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়। ভিডিয়োতে দেখা যায়—রোহিত শর্মা, শুভমান গিল, নভদীপ সাইনিসহ কয়েকজন ভারতীয় দলের ক্রিকেটার একটি রেস্তোরাঁয় বসে খাচ্ছেন। এই ভিডিয়ো নিয়ে নড়েচড়ে বসেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। রোহিতদের ওপর ‘বায়ো-বাবল’ বা জৈব সুরক্ষা বলয়ের নিয়ম ভাঙার অভিযোগ তুলেছে সিএ। এরপর পাঁচ ভারতীয় ক্রিকেটারকে আপাতত আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে।

নিজেদের ওয়েবসাইটে গতকাল শনিবার এক বিবৃতিতে পাঁচ ভারতীয় ক্রিকেটারকে আইসোলেশনে পাঠানোর খবরটি জানিয়েছে সিএ। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুদেশের বোর্ড বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে রোহিতরা বায়ো-বাবল ভেঙেছেন কি না। আপাতত অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের চিকিৎসক দলের পরামর্শে সতর্কতা হিসেবে তাঁদের আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে।
তবে আইসোলশেনে থেকেই ক্রিকেটারদের অনুশীলন করার ব্যবস্থা করে দেবে অস্ট্রেলিয়া। সেক্ষেত্রে কিছু নিয়ম মানতে হবে রোহতি-নভদীপদের। তাঁদের আলাদা করে অনুশীলনের ব্যবস্থা করা হবে।
রোহিত শর্মাদের এমন বিপদে ফেলেছেন নাভালদীপ সিং নামের এক ভক্ত। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, অস্ট্রেলিয়ার একটি রেস্তোরাঁয় রোহিতদের খাওয়ার বিল নীরবে মিটিয়ে দিয়ে তাঁদের চমকে দিয়েছেন সেই ভক্ত।
এরপর আবার টুইটারে ক্রিকেটারদের একসঙ্গে খাওয়ার একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেন নাভালদীপ। ক্যাপশনে জানান, প্রিয় তারকাদের না জানিয়েই বিলটা দিয়ে দিয়েছেন তিনি।
ক্যাপশনে এই ভক্ত লিখেছেন, ‘ওঁরা জানেন না, তবে আমি পুরো বিলটাই মিটিয়ে দিয়েছি। আমার সুপারস্টারদের জন্য এতটুকু তো করাই যায়।’
বিলের ছবিটিও পোস্ট করেছেন নাভালদীপ। এরপর তিনি লিখেছেন, “তাঁরা যখন জানতে পারলেন আমি বিল মিটিয়ে দিয়েছি, রোহিত বললেন, ‘পয়সা নিয়ে নাও, এ রকম ভালো লাগে না!’ আমি উত্তরে বলি, এটা পুরোটাই আমার তরফ থেকে। পন্থ আমাকে আলিঙ্গন করে বললেন, ‘ছবি তখন তুলব, যখন তুমি টাকা ফেরত নেবে।’ আমি কোনোভাবেই রাজি হইনি। শেষে আমরা সবাই ছবি তুললাম। ব্যাপক মজা হলো! পন্থ আবার আমার স্ত্রীকে বললেন, ‘লাঞ্চের জন্য ধন্যবাদ।’”
এরপর মুহূর্তের মধ্য ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত ওই ভিডিওকে কেন্দ্র করে আইসোলেশনেই যেতে হলো রোহিতদের।
চার ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে অ্যাডিলেডে ভারতকে আট উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারায় অস্ট্রেলিয়া। এরপর ঘুরে দাঁড়িয়ে বক্সিং ডে টেস্টে জিতে ১-১ সমতা ফিরিয়েছে ভারত। আগামী ৭ জানুয়ারি শুরু হবে তৃতীয় টেস্ট। এরপর ১৫ জানুয়ারি থেকে হবে বোর্ডার-গাভাস্কার ট্রফির চতুর্থ ও শেষ ম্যাচটি।

সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।