যুবককে মারধর ও ছিনতাইয়ের অভিযোগ ঢাবি ছাত্রলীগের ২ কর্মীর বিরুদ্ধে

অথর
নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :৪ আগস্ট ২০২২, ৫:০৫ পূর্বাহ্ণ
যুবককে মারধর ও ছিনতাইয়ের অভিযোগ ঢাবি ছাত্রলীগের ২ কর্মীর বিরুদ্ধে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে এক যুবককে মারধর ও ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় শাহবাগ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী যুবক প্রজিত দাস।

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের ভিসি চত্বরে গতকাল (মঙ্গলবার) রাত সাড়ে ১১টার দিকে এই ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

অভিযোগপত্রে ঢাবির শিক্ষার্থী তুষার হোসেন ও শামীমুল ইসলামের নাম উল্লেখ করেছেন ভুক্তভোগী প্রজিত দাস। তারা দুজনই মার্কেটিং বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী এবং মাস্টার দা সূর্যসেন হলে থাকেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

অভিযোগে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে প্রজিত মোটরসাইকেল চালিয়ে পলাশী থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) উদ্দেশে ভিসি চত্বর দিয়ে যাচ্ছিলেন। ভিসি চত্বরে পৌঁছানোর পর তুষার ও শামীমুলসহ ৫-৬ জন প্রজিতের মোটরসাইকেল থামিয়ে লাঠিসোঠা নিয়ে গালিগালাজ করে তার ব্যবহৃত মোবাইল হ্যান্ডসেট আইফোন ও মোটরসাইকেল নিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে তিনি প্রতিবাদ করেন।

অভিযোগে প্রজিত উল্লেখ করেন, তিনি প্রতিবাদ করার একপর্যায়ে অভিযুক্ত দুজনের সঙ্গে থাকা কয়েকজন তাকে লাঠি দিয়ে মারধর করেন। এতে তিনি মুখ এবং কানে আঘাত পান। অভিযুক্ত তুষার হোসেন তার কানে থাপ্পড় মারলে কানের পর্দা ফেটে যায়। এরপর ঘটনার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা তার মোটরসাইকেল এবং ৩০ হাজার টাকা মূল্যের আইফোন এবং সঙ্গে থাকা ১৭ হাজার টাকাসহ তাকে সূর্যসেন হলের গেস্টরুমে নিয়ে যান। পরে সেখানে আরেক দফা মারধরের পর তাকে খালি হাতে ছেড়ে দেওয়া হয়।

প্রজিতের এ অভিযোগটি এখনো মামলা হিসেবে নেওয়া হয়নি বলে জানান শাহবাগ থানার ওসি মওদূত হাওলাদার। ঘটনাটি যাচাই-বাছাই করতে থানার এসআই মো. শাহাবুদ্দিনকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।










আরও পড়ুন