যদি এমপি না হতাম তাহলে একটা বিয়ের দাওয়াত খেতে পারতাম: মমতাজ

অথর
নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :৫ অক্টোবর ২০২২, ৮:৫১ পূর্বাহ্ণ
যদি এমপি না হতাম তাহলে একটা বিয়ের দাওয়াত খেতে পারতাম: মমতাজ

বিয়ের নেমন্ত্রণ না পেয়ে ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন লোকসংগীত শিল্পী মমতাজ বেগম।

মানিকগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য লিখেছেন,‘হায়রে রাজনীতি!!!! আজকে যদি এমপি না হইতাম তাহলে একটা বিয়ের দাওয়াত খেতে পারতাম।’

বাংলা গানের যুবরাজ আসিফ আকবরের বড় ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে নেমন্ত্রণ না পেয়েই মঙ্গলবার এ স্ট্যাটাস দেন এ পপ সম্রাজ্ঞী।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে সংসদ সদস্য হয়েছেন মমতাজ। অন্যদিকে বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে আছে আসিফ আকবরের নাম। তাই অনেকেই ধারণা করছেন রাজনৈতিক বৈরিতার কারণে দাওয়াত পাননি মমতাজ।

আর এমন স্ট্যাটাস দিয়ে সেই ধারণাকে আরও পাকাপোক্ত করে দেন মমতাজ নিজেই।

তবে মমতাজকে ছেলের বিয়েতে আমন্ত্রণ না জানাতে পেরে দুঃখপ্রকাশ করেছেন আসিফ আকবর।

শিল্পীর ওই পোস্টের তলায় আবেগপ্রবণ দীর্ঘ বার্তা দিয়েছেন ‘ও প্রিয়া’ খ্যাত গায়ক। মমতাজকে বন্ধু সম্বোধনে আসিফ দাবি করেছেন, তাদের বন্ধুত্বের মাঝে রাজনীতি কখনও দেয়াল হয়ে দাঁড়াবে না।

মন্তব্যের ঘরে আসিফ আকবর লিখেছেন, ‘প্রিয় মম ( মমতাজ এমপি)। তুমি আমি সেরা পারিবারিক বন্ধু, এখানে কোনদিনই রাজনীতি প্রবেশের সুযোগ নেই। মাত্র চারদিন সময় পেয়েছি ছেলের বিয়ের জন্য। সবকিছুই হুট করে হয়ে গেছে। তোমাকে কন্টাক্ট করার মত সরাসরি যোগাযোগের ব্যবস্থা আমার কাছে নাই। তবে তোমাকে মন থেকে ফিল করেছি। আমি তোমার সবসময়ের বন্ধু। একদিন সময় দাও বাচ্চাদের সহ, আমরা বাসায় তোমার সারাজীবন দাওয়াত। কষ্ট নিও না বন্ধু, ভুল হলে ক্ষমা চাই। নিশ্চয়ই দ্রুত আমাদের দেখা হবে। ভালবাসা অবিরাম বন্ধু। আমার ব্যক্তিগত সম্পর্কে রাজনীতির কোন চান্সই নেই, এবং তুমি সেটা জানো।’

উল্লেখ্য, সোমবার রাতে মহা ধুমধামে আড়ম্বর পরিবেশে রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে আসিফের ছেলে শাফকাত আসিফ রণ’র বিয়ের আয়োজন করা হয়।

রণ-ঈশিতার বিয়েতে দুই পরিবারের লোকজন ছাড়াও শোবিজের অনেক তারকা হাজির ছিলেন। বিশেষ করে সংগীত শিল্পীদের উপস্থিতি ছিল পরিলক্ষিত।

তালিকায় ছিলেন রুনা লায়লা, কনকচাঁপা, কুমার বিশ্বজিৎ, কবির বকুল, শওকত আলী ইমন, কণা, সালমা, কোনালসহ সঙ্গীত অঙ্গনের অনেকেই । তবে দাওয়াত না পাওয়ায় পপ সম্রাজ্ঞী ও সংসদ সদস্য মমতাজ বেগমকে দেখা যায়নি বিয়ের অনুষ্ঠানে।

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।