মাত্রাতিরিক্ত কৃত্রিম রং ও মসলায় স্বাস্থ্যঝুঁকি – U.S. Bangla News




মাত্রাতিরিক্ত কৃত্রিম রং ও মসলায় স্বাস্থ্যঝুঁকি

ইউ এস বাংলা নিউজ ডেক্স:-
আপডেটঃ ৪ এপ্রিল, ২০২৩ | ৫:২০
ইফতারে বাহারি খাবার কার না খেতে ভালো লাগে। কিন্তু মুখরোচক এসব খাবার খেতে গিয়ে ঝুঁকিতে পড়ছে স্বাস্থ্য। ফুটপাতের দোকান, সাধারণ হোটেল বা কনফেকশনারির ইফতারের নানা পদে বিশেষ করে মাংসের পদে ব্যবহার হচ্ছে কৃত্রিম রং। দেখতে ভালো দেখাবে, ক্রেতারা আকৃষ্ট হবে এই আশায় রং ব্যবহারে মাত্রা ছাড়িয়ে যায়। ফুড গ্রেডের কোনো রং ব্যবহার না করে সাধারণ কৃত্রিম রং, যা জর্দার রং হিসাবে পরিচিত তা ব্যবহার হচ্ছে ইচ্ছেমতো। পাশাপাশি মসলার ব্যবহারও হচ্ছে দেদার। পুষ্টিবিদরা বলছেন, এ ধরনের খাবারে ক্যানসারসহ নানা রোগের মারাত্মক ঝুঁকি আছে। সরেজমিন রাজধানীর চকবাজার ঘুরে দেখা যায়, সেখানে চিকেন টিক্কা, শিক কাবাব, জিলাপিসহ নানা পদে খোলাবাজারে পাওয়া কৃত্রিম রং

দেদার ব্যবহার হচ্ছে। কাবাব পোড়ানোর স্থানের পাশেই রাখা হয়েছে রং ও মসলামিশ্রিত পাত্র। সেখান থেকে তা বারবার মাংসে ব্যবহার করা হচ্ছে। জিলাপি দোকানের একজন কর্মচারী হাফিজুলকে দেখা গেল, খেয়ালখুশিমতো জিলাপির খামিতে রং মেশাতে। জিজ্ঞেস করতেই বললেন, এই রংতো আমরা সবসময়ই ব্যবহার করি। একইভাবে কৃত্রিম এসব রং ছোটবড় সব হোটেলের চিকেন গ্রিল তৈরিতেও ব্যবহার করা হচ্ছে। রাজধানীর যে কোনো এলাকার ইফতার বেজারে গেলেই এসব কৃত্রিম রং ব্যবহারের চিত্রটি চোখে পড়ে। বেইলি রোড কিংবা ধানমণ্ডি-মোহাম্মদপুরের ইফতার বাজার-সবখানে মাংসের পদে অতিরিক্ত তেল ও মাসলার ছড়াছড়ি চোখে পড়বে। এসব বিষয়ে ক্রেতাদের অনেকেই খেয়াল করেন না। অনেকে আবার জেনে-বুঝেও বিষয়গুলোকে এড়িয়ে যান। ধানমন্ডির একটি অভিজাত রেস্টুরেন্ট থেকে তৈলাক্ত,

মসলা ও কৃত্রিম রং দেওয়া খাসির মাংসের পদ কিনছিলেন ইফতেখার হাসিব। তিনি বলেন, আমরা খাবারের জন্য এই বড় রেস্টুরেন্টগুলোর ওপর ভরসা করি। দেখতে পাচ্ছি তারা অনেক তেল, মসলা ও কৃত্রিম রং ব্যবহার করেছে। কিন্তু বিশ্বাস করতে চাই তারা যেগুলো ব্যবহার করেছে সেগুলো মানসম্মত। ইবনে সিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডায়েট কনসালট্যান্ট ও স্থুলতা ম্যানেজমেন্ট বিশেষজ্ঞ পুষ্টিবিদ সিরাজাম মুনিরা বলেন, প্রথমত খাবারে কৃত্রিম রং ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা নেই। কিন্তু তারপরও এই রঙের ব্যবহার করা হয় দেখতে ভালো লাগার জন্য। এতে খাবারের স্বাদ কিন্তু বাড়ে না। পুষ্টিগত দিক থেকে চিন্তা করলেও খাবারে কৃত্রিম রং ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা নেই। কিছু খাবারে প্রাকৃতিকভাবেই রং থাকে। সেগুলো যদি দেখতে

সুন্দর দেখানোর জন্য ব্যবহার করা হয় সেটি আমরা নিতে পারি। তিনি বলেন, ক্যানসার, পেনক্রিয়াটাইটিস, গলব্লাডারে পাথর, অতিরিক্ত অ্যাসিডিটি, কোষ্ঠকাঠিন্য, আইবিএসের মতো সমস্যা এই ধরনের অবাঞ্ছিত রং ব্যবহারের মাধ্যমে হতে পারে। শিশুদের ক্ষুধামন্দা, খাবারে অরুচির ক্ষেত্রেও এই ধরনের কৃত্রিম রং দায়ী। যেহেতু এই ধরনের রং তাদের পেটে ঠিকঠাক মতো হজম হয় না সেহেতু পরে তাদের দীর্ঘমেয়াদি বা ক্রনিক ডায়রিয়া, কলেরা হয়ে থাকে। যার কারণে বাচ্চারা পরবর্তী সময়ে হেপাটাইটিসের মতো ভয়ংকর রোগে ভুগতে পারে। এই পুষ্টিবিদ বলেন, কিছু কিছু ক্ষেত্রে বাজারজাতকরণের জন্য বা ইন্ডাস্ট্রিয়ালাইজেশনে যে খাবারগুলো রয়েছে যা অনেকদিন ধরে ব্যবহার করার তাগিদ থাকে। সেসব ক্ষেত্রে কিছু কৃত্রিম রং ব্যবহার করা হয় ফুড গ্রেড

মেনে। এফডিএ অনুমোদিত সেই ফুড গ্রেডের মধ্যে কিছু কালার আছে সেগুলো আমরা ব্যবহার করতে বলি। বাজারে দেদার বিক্রি হওয়া জর্দার রঙের বিষয়ে তিনি বলেন, জর্দার রং বলে ফুড গ্রেডে কোনো রং নেই। ফুড গ্রেডে যে ধরনের রং ব্যবহার করা হয় সেগুলোকে একটি কোডের মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। সেই কোডের অধীনে এগুলো বিক্রি করা হয়। এই রংগুলো ব্যবহারের সঠিক মাত্রাও আছে। সে অনুযায়ী ব্যবহার করা হচ্ছে কি না সেটিও দেখতে হবে।
ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
বেইলি রোডে আগুন: সন্দেহজনক ২ পাইপলাইন গাজায় বিমান থেকে ত্রাণ ফেলল যুক্তরাষ্ট্র ঢাকার ৯০ শতাংশ ভবনে নকশার বিচ্যুতি সড়ক পরিবহণ আইনের আওতায় মালিকদের আনার প্রস্তাব ডিসিদের শনাক্তের পরও মিনহাজের লাশ পেতে ভোগান্তি দুয়ারে দুয়ারে ঘুরছেন ৬১ হাজার শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রামের পূর্ণাঙ্গ রূপরেখা স্বাধীনতার ইশতেহারে কাস্টমসের হয়রানিতে আমদানি শূন্য বইমেলার শেষ দিনে ভিড় বিক্রি দুই-ই কম পাকিস্তানে আজ প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন, ৯ মার্চ প্রেসিডেন্ট ভোজ্যতেলের সাত রিফাইনারি পর্যবেক্ষণে: ভোক্তার ডিজি ঢাকা বার আইনজীবী ফোরামের ভোটের ফলাফল বাতিলের দাবি গণতন্ত্র মঞ্চ ও ১২ দলীয় জোটের সঙ্গে মির্জা ফখরুলের বৈঠক সংসদে সাবেক গণপূর্তমন্ত্রী ১৩০০ ভবন চিহ্নিত করা হলেও ভাঙা সম্ভব হয়নি বেইলি রোডে অগ্নিকা­ণ্ড: ভবনের ম্যানেজারসহ চারজন রিমান্ডে জার্মানির বিরুদ্ধে নিকারাগুয়ার মামলা ইউক্রেনে ‘আত্মহত্যার বাঁশিওয়ালা’ গাজায় গণহত্যার পক্ষে অবস্থান নিয়েছে বিএনপি-জামায়াত: পররাষ্ট্রমন্ত্রী শোকের শহরে আনন্দ মিছিল করল ছাত্রদল ‘আমি হয়তো আর দুই বছর খেলব’