পদে থেকেও ক্ষমতা না থাকার ক্ষোভ – U.S. Bangla News




পদে থেকেও ক্ষমতা না থাকার ক্ষোভ

ইউ এস বাংলা নিউজ ডেক্স:-
আপডেটঃ ১৪ মে, ২০২৪ | ৭:৫২
হলের অতিথিকক্ষে বসাকে কেন্দ্র করে শনিবার রাতভর সংঘর্ষে জড়ায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দুপক্ষ। এ ধরনের তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাঝে মাঝেই ছাত্রলীগের মধ্যে ছোট ছোট ঝামেলার সৃষ্টি হয়। অন্য সময় কয়েকজনের মধ্যে বাগ্বিতণ্ডা কিংবা হাতাহাতির ঘটনা ঘটলেও এবারের ঘটনা ভিন্নমাত্রা পেয়েছে। কারণ হিসাবে এর নেপথ্যে রয়েছে রাবি শাখা ছাত্রলীগের অন্তঃকোন্দল, নেতাদের মধ্যে বিভাজন, হলে আধিপত্য বিস্তার এবং পদে থেকেও ক্ষমতা না থাকার ক্ষোভ। গত দুদিন (রবি ও সোমবার) ছাত্রলীগের একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। শনিবার রাত ১০টায় ঘটনার সূত্রপাত হয় হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী হলের অতিথিকক্ষে বসাকে কেন্দ্র করে। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও হল শাখা

ছাত্রলীগের সভাপতি নিয়াজ মোর্শেদের সঙ্গে হল ছাত্রলীগের সহসভাপতি আতিকুর রহমান আতিকের বাগ্বিতণ্ডা থেকেই ঘটনা প্রকাণ্ড আকার ধারণ করে। আতিক বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান বাবুর অনুসারী হওয়ায় সভাপতির সব নেতাকর্মী আতিকের পক্ষে অবস্থান নেন। তাদের সঙ্গে যোগ দেন সাধারণ সম্পাদক আসাদুল্লা-হিল-গালিবের অনুসারীরাও। অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি শাহিনুল ইসলাম সরকার ডনকে নিয়াজ মোর্শেদের পক্ষে অবস্থান নিতে দেখা গেছে। রাত ১১টায় শুরু হওয়া এই সংঘর্ষ স্তিমিত হয় রাত ৩টার দিকে। এ সময় উভয়পক্ষকে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে দেখা যায়। এছাড়াও নেতাকর্মীদের হাতে রামদা, রডসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র দেখা গেছে। সংঘর্ষ চলাকালে ৬টি ককটেল বিস্ফোরণের শব্দও শোনা যায়। তবে ককটেল বিস্ফোরণের দায় নিতে চায়নি

কোনো পক্ষই। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত বছরের ২১ অক্টোবর রাবি শাখা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি গঠন করা হলে পদবঞ্চিত নেতারা নতুন কমিটিকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে বিক্ষোভ করেন। অবাঞ্ছিত ঘোষণাকারী নেতাদের মধ্যে অন্যতম নিয়াজ মোর্শেদ। সেই থেকেই বিরোধ শুরু। ওই সময় থেকে ছাত্রলীগের একাংশের সঙ্গে বিভাজন সৃষ্টি হয় নতুন কমিটির। একাধিক ছাত্রলীগ নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি হওয়ার পর হল ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক থাকা সত্ত্বেও নতুন করে দুজনকে দায়িত্ব দেন নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। ফলে হল সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে ডিঙিয়ে হলে আধিপত্য বিস্তার করতে থাকেন নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। সেই ক্ষোভ ধীরে ধীরে অগ্নিকুণ্ডে

রূপান্তরিত হতে থাকে। আবাসিক হল ও ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী হলে মোস্তাফিজুর রহমান বাবুর পক্ষের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা ফজলে রাব্বি জুনিয়র হওয়ায় হলে প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টা করেন বাবুর ঘনিষ্ঠ আতিকুর রহমান আতিক। বিষয়টি ভালোভাবে নেননি হল ছাত্রলীগের সভাপতি নিয়াজ মোর্শেদ। হলের আসন ভাগাভাগি নিয়েও তাদের মধ্যে ঝামেলা চলছিল। শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নিয়াজ মোর্শেদ বলেন, হলের বর্তমান সভাপতি-সম্পাদক থাকা অবস্থায় হলে দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা দেওয়া হয়েছে। আমাদের রাজনীতি থেকে নিষ্ক্রিয় করে দেওয়ার জন্যই মূলত দায়িত্বপ্রাপ্ত সভাপতি-সম্পাদক সৃষ্টি করা হয়েছে। ছাত্রলীগের কোথাও দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতার বিষয়ে বলা নেই। তারা চাইলে হল কমিটি বিলুপ্ত করে ভারপ্রাপ্ত নেতা দিতে পারে। এছাড়া আমরা জাতীয় কর্মসূচিতে

গিয়ে যথাযথ সম্মান পাই না। যা মেনে নেওয়া আমাদের জন্য কষ্টকর। জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান বাবু বলেন, আবাসিক হলের অনেক নেতাই ক্যাম্পাস ত্যাগ করায় সাংগঠনিক গতিশীলতা বৃদ্ধির জন্য আমরা হলে দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা সৃষ্টি করেছি। আর যারা ক্যাম্পাসে অবস্থান করছেন তারা সক্রিয় রাজনীতি করছেন না। ফলে তাদের হলেও দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা দেওয়া হয়েছে। আর আমরা তাদের সর্বোচ্চ সুবিধা দিয়ে রাজনীতি করার সুযোগ করে দিয়েছি। কিন্তু তারা আমাদের সঙ্গে রাজনীতি না করে বিরোধ সৃষ্টি করেছে।
ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলে নিয়েছেন বেনজীর, আলামত পেয়েছে দুদক ঢাকার পানিতে মিলল ক্যানসার সৃষ্টিকারী উপাদান স্বাভাবিক জীবনে না ফিরলে ছাড় নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চীনে ১২ কোটি বছর আগের ডাইনোসরের ৪০০ পায়ের ছাপ সোয়া দুই কোটি শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস খাওয়ানো হবে শনিবার গার্মেন্ট শ্রমিকদের টিসিবির স্মার্ট কার্ড দেওয়ার সুপারিশ জেনারেল আজিজের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ পর্যালোচনা করছে দুদক যুক্তরাজ্যে ভেঙে দেওয়া হলো পার্লামেন্ট ভাষণে নয়, রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে দেশ স্বাধীন হয়েছে: গয়েশ্বর বাংলাদেশিদের জন্য ভিসা চালু করছে ওমান এমপি আনার হত্যার তদন্ত নিয়ে যা বলল ভারত সরকারি চাকরির শূন্যপদে দ্রুত নিয়োগের তাগিদ এমপি আজিম হত্যা মামলা কনক্লুসিভ পর্যায়ে রয়েছে: হারুন এমপি আজিম হত্যা: কলকাতায় তদন্ত শেষে যেসব তথ্য দিলেন ডিবির হারুন আজিমের দেহ খণ্ডাংশ উদ্ধার অভিযান শেষে ঢাকায় ফিরলেন ডিবির হারুন ঘূর্ণিঝড় রেমালের তাণ্ডব হেলিকপ্টার থেকে দেখলেন প্রধানমন্ত্রী ঈদের আগে পরে ৬ দিন মহাসড়কে চলবে না ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান-লরি ঘূর্ণিঝড় রেমালে পৌনে ২ লাখ হেক্টর ফসলি জমির ক্ষতি ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে ‘লোন উলফ’ হামলার হুমকি মিশর-গাজা সীমান্ত দখলে নিয়েছে ইসরাইল