নিপীড়নের দায়ে চাকরি হারালেন জাবি শিক্ষক

অথর
নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ৯:১৩ পূর্বাহ্ণ
নিপীড়নের দায়ে চাকরি হারালেন জাবি শিক্ষক

জাহাঙ্গীরগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) সরকার ও রাজনীতি বিভাগের এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে একই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সানওয়ার সিরাজকে স্থায়ীভাবে অপসারণ করেছে বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসন।

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের সভাপতিত্বে সিন্ডিকেটের নিয়মিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার ও সিন্ডিকেট সচিব রহিমা কানিজ বুধবার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেলের তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেয় সিন্ডিকেট। সানওয়ার সিরাজ বিশ^বিদ্যালয় থেকে আর কোনো সুযোগ-সুবিধা পাবেন না।

এদিকে, সানওয়ার সিরাজের দাবি, তিনি সুষ্ঠু বিচার পাননি। বিশ^বিদ্যালয়ের ‘যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেল’ সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য ব্যবহৃত হচ্ছে। বুধবার বিকাল ৪ টায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয় প্রেসক্লাব কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেলে’র প্রধান আমার বিরুদ্ধে এক পাক্ষিক তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। আমি বিভিন্ন সময় এই মিথ্যা অভিযোগের বিরুদ্ধে নানা ডকুমেন্টস উপস্থাপন করতে চাইলেও সেল তা গ্রহণ না করেই তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। এছাড়া, যিনি তদন্ত কার্যক্রম সেলের প্রধান তিনি একাধারে সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী সিন্ডিকেটেরও সদস্য। তাই সিদ্ধান্ত প্রভাবিত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

এ বিষয়ে সিন্ডিকেট সদস্য এবং ‘যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেলে’র প্রধান অধ্যাপক রাশেদা আখতারের সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার সাথে কথা বলা হয়নি।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর সানওয়ার সিরাজের বিরুদ্ধে সরকার ও রাজনীতি বিভাগের ৪৩ ব্যাচের এক ছাত্রী বিভাগের সভাপতি বরাবর যৌন হয়রানির লিখিত অভিযোগ দেন। ওই বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর তদন্তের জন্য অভিযোগটি বিশ^বিদ্যালয়ের যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেলে পাঠানো হয়।

অভিযোগ আমলে নিয়ে বিশ^বিদ্যালয়ের যৌন নিপীড়ন বিরোধী সেল তদন্ত কাজ শুরু করে। এবং তদন্ত চলাকালে সানওয়ার সিরাজকে সব ধরনের একাডেমিক ও প্রশাসনিক কাজ থেকে সাময়িকভাবে বিরত রাখার সুপারিশ করে।

সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

আরও পড়ুন