দাম বাড়লেও লাভবান হচ্ছে না উৎপাদনকারীরা – U.S. Bangla News




দাম বাড়লেও লাভবান হচ্ছে না উৎপাদনকারীরা

ইউ এস বাংলা নিউজ ডেক্স:-
আপডেটঃ ৮ মার্চ, ২০২৩ | ৬:৫৬
ডিম ও মুরগির মাংসের দাম বাড়লেও লাভবান হচ্ছে না উৎপাদনকারীরা। পোল্ট্রি ফিডের কাঁচামালের বাড়তি দাম ও ডলার সংকটে এলসি খোলার সীমাবদ্ধতায় বিকাশমান এই খাতটি অতীতের যে কোনো সময়ের তুলনায় গভীর সংকটে পড়েছে। ফলে খামারিরা ঝরে পড়ছে। যার নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে সরবরাহে। দাম বাড়ার সেটিও একটি কারণ বলে মনে করছেন পোল্ট্রি খাতের উদ্যোক্তারা। গত রবিবার ঢাকার একটি হোটেলে পোল্ট্রি শিল্পের সংকট বিষয়ে টেলিভিশন, জাতীয় দৈনিক ও অনলাইনের জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় তাঁরা আরও জানান- উদ্ভূত পরিস্থিতিতে পোল্ট্রি খাতের সমস্যা সমাধানের উপায় খুঁজতে ১৪-১৫ মার্চ ঢাকায় দুদিনব্যাপী একটি আন্তর্জাতিক পোল্ট্রি সেমিনার এবং ১৬-১৮ মার্চ তিন দিনব্যাপী পোল্ট্রি শো’র আয়োজন করতে যাচ্ছে

‘ওয়ার্ল্ড’স পোল্ট্রি সায়েন্স অ্যাসোসিয়েশন-বাংলাদেশ শাখা’ (ওয়াপসা-বাংলাদেশ)। মতবিনিময় সভাটি সঞ্চালনা করেন ডিবিসি নিউজের এডিটর প্রণব সাহা। উপস্থিত ছিলেন মাছরাঙা টিভির চিফ এডিটর রেজওয়ানুল হক; নির্বাহী সম্পাদক ওবায়দুল কবির, ইনডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের চিফ নিউজ এডিটর আশিস সৈকত প্রমুখ। ওয়াপসা- বাংলাদেশ শাখার সভাপতি মসিউর রহমান বলেন, করোনা মহামারির প্রভাব কাটতে না কাটতেই ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাবে আন্তর্জাতিক বাজারে ফিড তৈরির কাঁচামালের দাম অস্বাভাবিক বেড়েছে। ফলে বেড়েছে ফিডের উৎপাদন খরচ। তিনি বলেন, ২০২২ সালের সঙ্গে তুলনা করা হলে সয়াবিন মিলের দাম গড়ে প্রায় ১৩৭.৪১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০২২ সালের জুলাই মাসে সয়াবিন মিলের দাম যেখানে ছিল কেজিপ্রতি ৩৪.৫৪ টাকা; বর্তমানে তা ৮২ টাকায় উন্নীত হয়েছে। শুধুমাত্র সয়াবিন মিল

ও ভুট্টার মূল্যবৃদ্ধিকে আমলে নিলে গত ১ বছরের ব্যবধানে পোল্ট্রি ফিডের উৎপাদন খরচ বেড়েছে গড়ে প্রায় ৭১.৬৩ শতাংশ। অন্যদিকে সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতা হ্রাস পাওয়ায় যে পরিমাণ খরচ করে ডিম-মুরগি উৎপাদন করতে হচ্ছে সে দামে খামারিরা বিক্রি করতে না পেরে অসংখ্য খামার বন্ধ হয়ে গেছে। মসিউর বলেন, বর্তমান সময়ে প্রতিটি ডিমের উৎপাদন খরচ প্রায় ১১ টাকা। গত ১ মার্চ ২০২৩ তারিখে খামারি বিক্রয় করেছে বাদামি ডিম ৯.৩৫ টাকা এবং সাদা ৮.৮৫ টাকায়। ২০২২ সালে পাইকারি বাজারে বাদামি ডিমের গড় মূল্য ছিল ৮.৭৯ টাকা এবং সাদা ডিমের ৭.৯২ টাকা; যেখানে গড় উৎপাদন খরচ ছিল ১০.৩১টাকা। অর্থাৎ প্রতিটি ডিম বিক্রি করে খামারির লোকসান হয়েছে

গড়ে প্রায় ১.৫২-২.৩৯ টাকা। ব্রিডার্স অ্যাসোসিয়েশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু লুৎফে ফজলে রহিম খান বলেন, বিগত ২০২২ সালের মে মাস থেকে একদিন বয়সী মুরগির বাচ্চার দরপতন শুরু হয়েছে। মাঝে আগস্ট-সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাসে মার্কেট কিছুটা কারেকশন হলেও পরবর্তীতে আবারও মূল্য পতনের কারণে রুগ্নপ্রায় শিল্পে পরিণত হয়েছে এ খাতটি। তিনি বলেন, ২০২২ সালে একদিন বয়সী ব্রয়লার বাচ্চার সর্বনি¤œ দাম ছিল ৮ টাকা এবং সর্বোচ্চ দাম ছিল ৫১ টাকা, গড় দাম ছিল প্রায় ৩১.৫৮ টাকা যেখানে গড় উৎপাদন খরচ ছিল ৩৮.৭৮ টাকা। কাজেই দেখা যাচ্ছে- প্রতিটি একদিন বয়সী ব্রয়লার বাচ্চা বিক্রি করে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের লোকসান হয়েছে প্রায় ৩.৯১ টাকা। অন্যদিকে লেয়ার বাদামি বাচ্চার সর্বনি¤œ দাম ছিল ১৩

টাকা এবং সর্বোচ্চ ৩১ টাকা, গড় দাম ছিল প্রায় ২২ টাকা; যেখানে গড় উৎপাদন খরচ ছিল ৪৬.৭৫ টাকা। অর্থাৎ প্রতিটি লেয়ার বাচ্চায় লোকসান হয়েছে প্রায় ২৪.৭৫ টাকা। ওয়াপসা- বাংলাদেশ শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. মাহাবুব হাসান বলেন, এক কেজির একটি ব্রয়লার মুরগি উৎপাদন করতে খামারির খরচ হয় গড়ে প্রায় ১৪৯-১৫২ টাকা। ২০২২ সালে পাইকারি বাজারে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হয়েছে সর্বনি¤œ ১১৮ এবং সর্বোচ্চ ১৪৮ টাকা। গড় মূল্য ছিল ১২৯ টাকা। যেখানে গড় উৎপাদন খরচ ছিল ১৪৪.৯৪ টাকা। কাজেই দেখা যাচ্ছে- প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি করে একজন খামারি লোকসান গুনেছে প্রায় ১৫.৯৬ টাকা। মসিউর বলেন, এখনই উদ্যোগ না নিলে এই খাতের

বড় ক্ষতি হবে যাতে।
ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
বেইলি রোডে আগুন: সন্দেহজনক ২ পাইপলাইন গাজায় বিমান থেকে ত্রাণ ফেলল যুক্তরাষ্ট্র ঢাকার ৯০ শতাংশ ভবনে নকশার বিচ্যুতি সড়ক পরিবহণ আইনের আওতায় মালিকদের আনার প্রস্তাব ডিসিদের শনাক্তের পরও মিনহাজের লাশ পেতে ভোগান্তি দুয়ারে দুয়ারে ঘুরছেন ৬১ হাজার শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রামের পূর্ণাঙ্গ রূপরেখা স্বাধীনতার ইশতেহারে কাস্টমসের হয়রানিতে আমদানি শূন্য বইমেলার শেষ দিনে ভিড় বিক্রি দুই-ই কম পাকিস্তানে আজ প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন, ৯ মার্চ প্রেসিডেন্ট ভোজ্যতেলের সাত রিফাইনারি পর্যবেক্ষণে: ভোক্তার ডিজি ঢাকা বার আইনজীবী ফোরামের ভোটের ফলাফল বাতিলের দাবি গণতন্ত্র মঞ্চ ও ১২ দলীয় জোটের সঙ্গে মির্জা ফখরুলের বৈঠক সংসদে সাবেক গণপূর্তমন্ত্রী ১৩০০ ভবন চিহ্নিত করা হলেও ভাঙা সম্ভব হয়নি বেইলি রোডে অগ্নিকা­ণ্ড: ভবনের ম্যানেজারসহ চারজন রিমান্ডে জার্মানির বিরুদ্ধে নিকারাগুয়ার মামলা ইউক্রেনে ‘আত্মহত্যার বাঁশিওয়ালা’ গাজায় গণহত্যার পক্ষে অবস্থান নিয়েছে বিএনপি-জামায়াত: পররাষ্ট্রমন্ত্রী শোকের শহরে আনন্দ মিছিল করল ছাত্রদল ‘আমি হয়তো আর দুই বছর খেলব’