চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীকে বিবস্ত্র করে রাস্তায় ঘোরাল – U.S. Bangla News




চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীকে বিবস্ত্র করে রাস্তায় ঘোরাল

ইউ এস বাংলা নিউজ ডেক্স:-
আপডেটঃ ১৯ ডিসেম্বর, ২০২২ | ৭:৩৭
চাঁপাইনবাবগঞ্জে চাঁদা না দেওয়ায় এক ব্যবসায়ীকে নির্যাতনের পর বিবস্ত্র করে জনবহুল রাস্তায় ঘোরানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এমনকি নির্যাতন ও বিবস্ত্র করে রাস্তায় ঘোরানোর ভিডিও ধারণ করা হয়েছে। রবিবার (১৮ ডিসেম্বর) রাতে ধারণকৃত ৫৩ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়। এর আগে ১১ ডিসেম্বর রাত সাড়ে ৮টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের বটতলাহাটে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আজ ভোরে অভিযান চালিয়ে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্থানীয় এক প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে ওই ব্যবসায়ীর অবৈধ সম্পর্ক ছিল। ঘটনার রাতে ওই নারীর বাড়িতে যান তিনি। সে সময় অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে ওই ব্যবসায়ীকে নির্যাতনের পর বিবস্ত্র করে রাস্তায়

ঘোরানো হয়েছে। তাকে বিবস্ত্র অবস্থায় হাঁটিয়ে ওই ব্যক্তির ভাইয়ের বাড়ির সামনে থেকে ঘুরিয়ে আনা হয়। যারা ওই ব্যক্তিকে অনৈতিক কাজের অভিযোগে নির্যাতন ও বিবস্ত্র করে প্রকাশ্যে রাস্তায় ঘুরিয়েছেন তারা সবাই স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তির লোকজন। মামলা এজাহারে তিনি উল্লেখ করেন, এক ব্যক্তির কাছে পাওনা টাকা চাইতে গেলে পূর্ব-পরিকল্পিতভাবে আসামিরা তাকে আটকিয়ে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। চাঁদার টাকা দিতে রাজি না হলে মারধর করে চাকু দেখিয়ে নগদ ১৪ হাজার ৫শ টাকা ও একটি স্মার্টফোন ছিনিয়ে নেয়। এ সময় তাকে জ্যাকেট, প্যান্ট ও গেঞ্জি জোরপূর্বক খুলে বিবস্ত্র করে রাস্তায় ঘোরায় এবং ভিডিও স্থিরচিত্র ধারণ করে। পরে আসামিরা তাদের মোবাইলে ধারণ করা

ওই ব্যবসায়ীর ভিডিওটি ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে আরও এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। তাদের কথায় সাড়া না দেওয়ায় তারা পরস্পরের যোগসাজসে ধারণ করা ভিডিওটি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। এ মামলায় মো. বাক্কারকে প্রধান আসামি করে আরও সাতজনের নামোল্লেখসহ ৫/৬ জনকে অজ্ঞাতপরিচয় আসামি করা হয়েছে। এ বিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম আলমগীর জানান, বিবস্ত্র করে এক ব্যবসায়ীকে ঘোরানোর ভিডিওটি দেখার পর অভিযান চালিয়ে এজাহারনামীয় তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছি। এরা এলাকার চিহ্নিত বখাটে। পরে আসামিদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। বাকিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।
ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
বন্দুকধারীদের হামলায় সাবেক বিধায়কসহ ২ ভারতীয় রাজনীতিক নিহত ‘স্যার আমার সন্তানদের জামিন দিয়েন না’, হাইকোর্টে বৃদ্ধ মায়ের আর্তনাদ সবুজের বুক চিরে শত শত অবৈধ পুকুর খনন, ক্ষোভে ফেটে পড়লেন এলাকাবাসী আবেদন খারিজ: জ্ঞানবাপী মসজিদে চলবে পূজা ‘বোরকার ভেতরে দুষ্টামি-ভণ্ডামি বেশি লুকিয়ে থাকে’ শিক্ষার্থীকে অধ্যক্ষ গাজা যুদ্ধ: ইসরাইলি দূতাবাসের সামনে শরীরে আগুন দিলেন মার্কিন সেনা চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল মালয়েশিয়ায় কর্মী নিয়োগের কোটা স্থগিতের বিষয়ে পুনর্বিবেচনার অনুরোধ ট্রেড গ্রুপের ১০ রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠাচ্ছে সরকার ‘বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অনেক দেশের জন্য অনুপ্রেরণা’ যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশ সম্পর্কের নতুন অধ্যায় শুরু করতে আগ্রহী: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ট্রাম্পের কাছে ‘নালিশের’ সাড়ে ৪ বছর পর মুখ খুললেন প্রিয়া সাহা বিপিএলকে কেন ‘সার্কাস লিগ’ বললেন হাথুরুসিংহে আগামী চার মাসে প্রাথমিকে নিয়োগ হবে ১০ হাজার শিক্ষক ‘আমরা বিমান হামলায় মরিনি কিন্তু ক্ষুধায় মরছি’ গাজায় দুধের সরবরাহ বন্ধ, ২ মাসের শিশুর মৃত্যু রাখাইনের রাজধানীর কাছে পুলিশ স্টেশন দখল করল আরাকান আর্মি রঙ-বেরঙের লণ্ঠনে রঙিন চীন মিয়ানমারে বিদ্রোহীদের দখলে সেনাবাহিনীর অস্ত্রভর্তি ৫ ট্রাক বাংলাদেশের অন্তর্ভুক্তিমূলক প্রবৃদ্ধির জন্য আর্থিক খাতের সংস্কার প্রয়োজন: বিশ্বব্যাংকের এমডি