গর্ভপাতের জন্য স্বদেশে ছুটছে অ্যামেরিকান প্রবাসীরা। – U.S. Bangla News




ইউ এস বাংলা নিউজ ডেক্স:-
প্রকাশিতঃ ১২ জানুয়ারি, ২০২৩
৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ

গর্ভপাতের জন্য স্বদেশে ছুটছে অ্যামেরিকান প্রবাসীরা।

ইউ এস বাংলা নিউজ ডেক্স:-
আপডেটঃ ১২ জানুয়ারি, ২০২৩ | ৯:৫৩
গর্ভপাত ( ABORTION ) হলো কোন ফিটাস বা ভ্রূণ নিজে নিজে বেঁচে থাকতে সক্ষম হওয়ার আগেই এটিকে অপসারণ করে অথবা মাতৃগর্ভ থেকে জোরপূর্বক বের করে দিয়ে গর্ভধারণের অবসান ঘটানো। গর্ভপাত যদি ইচ্ছাকৃতভাবে হয়ে থাকে, কোনো ধরনের কারণ যদি এর মধ্যে না থাকে তাহলে এটি হারাম। এটি যে কোন অবস্থায় বা যত দিনের হোক না কেন। কারণ যেহেতু একটি বিষয় নিশ্চিত হওয়ার পরে সেটাকে ধ্বংস করা হয়েছে। আমাদের সমাজে খুব সহজেই এই ভয়ানক রকমের কাজটি অকপটে করে যাচ্ছে। অনেক স্বামী স্ত্রী বিয়ের পর, এখনই সন্তান নিবেন না বলে পারিবারিক জীবনে যখনই ইচ্ছের বাইরে সন্তান গর্ভে চলে আসে তখনই

শুরু হয়ে যায় অস্থিরতা, ডাক্তারের কাছে যেয়ে গর্ভপাত করিয়ে আসেন। মুসলিম, হিন্দু , খ্রিষ্টান সহ সব ধর্মেই মানব হত্যা নিষেধ বা হারাম ঘোষণা করা হয়েছে। মহান আল্লাহ পৃথিবীতে কোন শিশুকে পাঠাবেন তা পরিকল্পনা করে রেখেছেন। এর জন্য সুস্থ সুন্দর নিরাপদ ব্যবস্থপনাও দিয়েছেন। এখানে স্বামী স্ত্রীকেও মনে রাখতে হবে যে, সন্তান নিজেরা নেওয়ার বা না নেওয়ার ক্ষমতা রাখেন না বরং মহান আল্লাহ যিনি একমাত্র ক্ষমতার অধিকারী সেই সৃষ্টিকর্তা যাকে চাইবেন তাকেই দান করবেন। যাকে সন্তান দিতে চাইবেন না তাকে দেবেন না। অনেকেই সন্তানকে খাওয়াতে পড়াতে পারবে না , মানুষ করতে পারবে না ইত্যাদি কথা ভেবে সন্তান নেয়

না, আবার এই কথা ভেবে অনেকে গর্ভের সন্তানকে নষ্ট বা গর্ভপাত করে ফেলে। অথচ এই বিষয়টি সুস্পষ্ট করে প্রতিটি ধর্মেই বলেছে , আমি দুনিয়াতে তোমাদের জন্যও রিজিকের ব্যবস্থা করেছি এবং তাদের জন্যও যাদের রিজিকদাতা তোমরা নও, এমন কোন বস্ত নেই যার ভান্ডার আমার কাছে নেই, যার থেকে আমি এক পরিকল্পিত হিসাব অনুসারে বিভিন্ন সময়ে রিজিক দিয়ে থাকি। আমেরিকাতে গর্ভপাত ছিল সবার জন্য ওপেন। যে কেউ গর্ভপাত করাতে পারে, কোন ভেদাভেদ ছিল না। ২০২২ সালে নতুন আইন করে কেউ গর্ভপাত করাতে পারবে না। এই আইনের কারনে আমেরিকান মেয়েরা যতটুকু বিপদে পড়ছে তারচেয়ে তিনগুন বেশী বিপদে পড়েছে বাংলাদেশী মহিলারা।

কারণ আমেরিকান মেয়ের গর্ভপাত না করাতে পারলে তাঁরা বাচ্চা নিয়ে নেয় এবং নির্ভয়ে জন্মদাতা পিতার নাম বলে দেয়। সমস্যা হল বাংলাদেশী মহিলারা স্বামী ছাড়া অন্য কারো সাথে সম্পর্ক করতে পারে কিন্তু বাচ্চা নেবার মতো এখনো সাহস অর্জন করতে পারে নাই। যদিও তাঁরা প্রেমের সময় বলতে পারে তোমাকে ছাড়া বাঁচব না, তোমাকে সারাজীবন ভালোবেসে যাব, তুমি আমার জীবন, তুমি আমার মরণ ইত্যাদি ইত্যাদি যতসব ভালোবাসার কথা। আর যদি একবার কোনমতে পেটে বাচ্চা চলে আসে তখন দেখা যায় বাংলাদেশী মহিলাদের অবস্থা। তখন বলতে শুনা যায় এই বাচ্চার চেহারা কার মতো হবে, ছেলে হবে না মেয়ে হবে ইত্যাদি ইত্যাদি। আমেরিকার গর্ভপাত

আইনের পর থেকেই অনেক বাংলাদেশী মহিলা পেট ব্যথা, বুক ব্যথা, বুমি করে, মাথা ঘুড়ায়, গলা ব্যথা , সহ নানা কারণ বলে দেশে যাইতেছে কবিরাজ দেখানোর জন্য। কমিউনিটিতে বলতে শুনি আসলেই তাঁরা কবিরাজ দেখাতে যায় নাই ,তাঁরা গিয়েছে গর্ভপাত করাতে। এইগুলো কথার কথা সত্য মিথ্যা যাচাই করার দরকার নেই। তবে এই দুনিয়াতে যতগুলো ধর্ম আছে আমার মনে হয় সব ধর্মেই বলেছে " মানব হত্যা করা মহা অপরাধ"।
ট্যাগ:

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:


শীর্ষ সংবাদ:
ইসরাইলকে রাফায় হামলা বন্ধের নির্দেশ আইসিজের এমপি আনারের খণ্ডিত লাশ নিয়ে যেভাবে বের হন খুনিরা এমপি আনার হত্যা: ১২ দিনের রিমান্ডে কসাই জিহাদ আজিজ ও বেনজীরের দুর্নীতির দায় সরকার এড়াতে পারে না: দুদু সৌদি আরবে পৌঁছেছেন প্রায় ৩৯ হাজার হজযাত্রী এমপির ছেলে এমপি হোক সেটা আমি চাই না: ব্যারিস্টার সুমন নেতাহিয়াহুর গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় সমর্থন রয়েছে বাংলাদেশের: পররাষ্ট্রমন্ত্রী অপরাধী হলে সরকার শাস্তি দেবে, প্রটেকশন নয়: ওবায়দুল কাদের ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্র হিসেবে যে ১৪৩ দেশ স্বীকৃতি দিয়েছে শাহীনের ফ্ল্যাটে নিয়মিত যেতেন শিলাস্তি, স্বপ্ন ছিল মডেন হবার উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন, পুড়ে ছাই ২৩০টি ঘর রাজনীতিতে আসার ইঙ্গিত দিলেন আনারকন্যা শান্তিনগরে বহুতল ভবনে আগুন হুন্ডি ও সোনা চোরাচালানের টাকার ভাগ নিয়ে ‘দ্বন্দ্বে খুন’ এমপি আজিম বিদেশি বন্ধুরা ক্ষমতায় বসাবেন, বিএনপির সে স্বপ্নও এখন শেষ: ফখরুলকে কাদের এমপি আজিম হত্যা: আদালতে ৩ আসামি, ১০ দিনের রিমান্ড চাইবে ডিবি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে যেমন একাদশ নিয়ে মাঠে নামছে পাকিস্তান ‘বেনজীর-আজিজ কাউকে বাঁচাতে যাবে না সরকার’ সমর্থন নিয়ে দ্বন্দ্ব, বাবার বিরুদ্ধে মেয়ের সংবাদ সম্মেলন বিশ্বকাপে বিশেষ ভূমিকায় শহীদ আফ্রিদি