ক্যাপিটল হিল হামলার বর্ষপূর্তি ট্রাম্পের সহিংস সমর্থকদের কড়া সমালোচনায় বাইডেন

অথর
নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :৮ জানুয়ারি ২০২২, ৭:০৩ পূর্বাহ্ণ
ক্যাপিটল হিল হামলার বর্ষপূর্তি  ট্রাম্পের সহিংস সমর্থকদের কড়া সমালোচনায় বাইডেন

ক্যাপিটল হিলে হামলার প্রথম বর্ষপূর্তিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, তিনি যে ঘোষণা দিয়েছিলেন তা ‘ঈশ্বরের সত্য’। গত বছর ৬ জানুয়ারি সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থকরা ক্যাপিটল হিলে হামলা করে যা যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে মৌলিক পরিবর্তন ঘটিয়েছে। এ দেশের গণতন্ত্রের ভবিষ্যৎ নিয়ে বিশ্বব্যাপী উদ্বেগের সৃষ্টি করে।

ক্যাপিটল হিলে হামলার বর্ষপূর্তিতে বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে বাইডেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার সহিংস সমর্থকদের নিয়ে এসব সমালোচনা করেন। এএফপি, সিএনএন, ভয়েস অব আমেরিকা ও টাইমস অব ইন্ডিয়া।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন, আমাদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো একজন প্রেসিডেন্ট, শুধুমাত্র নির্বাচনে হার নয়, শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন, যখন সহিংস দাঙ্গাকারীরা ক্যাপিটল হিলের ভেতরে ভাঙচুর করে। তবে তারা ব্যর্থ হয়েছে। তিনি আরও বলেন, গণতন্ত্রের ওপর হামলা হয়েছে। আমরা জনগণ তা সহ্য করেছি। আমরা টিকে আছি।

প্রেসিডেন্ট ও অন্য কংগ্রেশনাল ডেমোক্রেটরা দিনের কর্মসূচি শুরু করেন স্ট্যাচুয়ারি হলে যেখানে এক বছর আগে দাঙ্গাকারীরা ক্যাপিটল হিলের অন্য বিভিন্ন অংশের মতো ভাঙচুর করেছিল এবং নির্বাচনি ভোট গণনায় বাধা দিয়েছিল।

সেদিন কী ঘটেছিল ও ২০২০ সালের নির্বাচনে বহু রিপাবলিকান বাইডেনের জয়কে অব্যাহতভাবে প্রত্যাখ্যান করাসহ সেই হামলার বিষয়ে কী ধরনের মিথ্যা ব্যাখ্যা দিয়েছিল তার মধ্যে একটি পার্থক্য টানেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন। তিনি বলেন, আমি, আপনি ও গোটা বিশ্ব আমাদের নিজেদের চোখে দেখেছি।

যারা শুনছেন তাদেরকে তিনি চোখ বন্ধ করে সেদিন যা দেখেছিলেন তা স্মরণ করতে বলেন, সেই ভয়াবহ, হিংস্র ঘটনা যাতে জনতা পুলিশের ওপর হামলা করেছিল, হাউস স্পিকারকে হুমকি দিয়েছিল, ফাঁসিকাষ্ঠ বানিয়ে ভাইস প্রেসিডেন্টকে ফাঁসিতে ঝোলানোর হুমকি দিয়েছিল।

আর সবকিছু হোয়াইট হাউজে বসে টিভিতে দেখেছিলেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। বাইডেন বলেন, এটাই হচ্ছে ৬ জানুয়ারি ২০২১ সম্পর্কে ঈশ্বরের সত্য। তারা সংবিধান বিকৃত করার চেষ্টা করেছিল।

ওই হামলার তদন্তকারী হাউজ কমিটির প্রধান এবং ক্যাপিটলে বৃহস্পতিবারের অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া হাতেগোনা কজন রিপাবলিকান প্রতিনিধির একজন লিজ চেনি সতর্ক করে দিয়ে বলেন, হুমকি অব্যাহত রয়েছে। ট্রাম্প এখনো একই দাবি করে আসছেন যদিও তিনি জানেন এই দাবি ৬ জানুয়ারির হামলার কারণ ছিল।

তিনি বলেন, দুঃখজনকভাবে আমার দলের অনেকেই সাবেক প্রেসিডেন্টকে সমর্থন করছেন, তারা অন্যভাবে দেখছেন অথবা বিপদ কমাচ্ছেন। এভাবেই গণতন্ত্র মারা যায়। আমরা সেটা কোনোভাবেই হতে দিতে পারি না।

ক্যাপিটল হিলে হামলার বছরপূর্তিতে নিশ্চুপ রয়েছেন ট্রাম্প। এদিনে সংবাদ সম্মেলন ডেকেও তা বাতিল করেছেন দেশটির সাবেক এই প্রেসিডেন্ট। ডোনাল্ড ট্রাম্পের বক্তব্য দেওয়ার কথা থাকলেও তিনি তা পিছিয়ে দিয়েছেন।

এর আগে হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র জেন পিসাকি স্থানীয় সময় মঙ্গলবার বিকালে এক বিবৃতিতে বলেছিলেন, ক্যাপিটল হিলের ঘটনার পর থেকে ছড়ানো মিথ্যা নয়, বরং সেদিন কী ঘটেছিল তার সত্য বিবরণ ও বিষয়টি আইনের শাসন ও গণতান্ত্রিক সরকারের জন্য কী বিপদ সৃষ্টি করেছে তা তুলে ধরতে চান প্রেসিডেন্ট।

২০২১ সালের ৬ জানুয়ারি মার্কিন আইন পরিষদে জো বাইডেনের প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচন চূড়ান্ত করার জন্য ইলেক্টোরাল কলেজ ভোট গণনা চলছিল। তখন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থকরা ভোটে কারচুপির অভিযোগ এনে ক্যাপিটল হিলে হামলা করে নজিরবিহীন তাণ্ডব চালায়।

ওই দিনের সহিংসতায় চারজন নিহত হয়। তাদের মধ্যে একজন পুলিশ সদস্য। ডোনাল্ড ট্রাম্প ঘোষণা দিয়েছেন, ক্যাপিটল হিলে তার সমর্থকদের প্রতিবাদের বর্ষপূর্তির নির্ধারিত কর্মসূচি ১৫ জানুয়ারি পালিত হবে। সেদিন অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যে একটি সমাবেশে বক্তব্য দেবেন তিনি। ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের মার-এ-লাগো এস্টেট থেকে তিনি মঙ্গলবার এ ঘোষণা দেন।

ক্যাপিটল ভবনে হামলার ঘটনা তদন্তে মার্কিন কংগ্রেসের একটি কমিটি কাজ করে যাচ্ছে। এই কমিটি ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ মহলের কাছ থেকে খুব কমই সহযোগিতা পাচ্ছে। তবে তারা ইতোমধ্যে তিন শতাধিক মানুষের জবানবন্দি নিয়েছে। হাজারো নথি সংগ্রহ করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।