অস্ট্রেলিয়ায় সংবাদ কনটেন্ট দেখানো বন্ধ করে দিল ফেসবুক

অথর
নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১০:২০ পূর্বাহ্ণ
অস্ট্রেলিয়ায় সংবাদ কনটেন্ট দেখানো বন্ধ করে দিল ফেসবুক

মুনাফার ভাগ গণমাধ্যমকে দেওয়ার আইন নিয়ে সরকারের সঙ্গে টানাপড়েনের জেরে অস্ট্রেলিয়ায় সংবাদ কনটেন্ট দেখা বা শেয়ার করার সুযোগ বন্ধ করে দিয়েছে ফেসবুক।

রয়টার্স জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে ঘুম ভেঙে অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দারা আবিষ্কার করেন, তাদের নিউজ ফিডে কোনো সংবাদ কনটেন্ট নেই। স্থানীয় বা আন্তর্জাতিক কোনো সংবাদমাধ্যমের ফেসবুক পেইজও তারা দেখতে পারছেন না।

বিবিসি লিখেছে, ফেসবুক কর্তৃপক্ষের নাটকীয় এই পদক্ষেপের ফলে অস্ট্রেলিয়ার নাগরিকদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া নিয়েই উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার বাইরে থেকেও দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলোর ফেসবুক পেইজ দেখা যাচ্ছে না।

সংবাদ মাধ্যমের পেইজের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়া সরকারের স্বাস্থ্য, জ্বালানিসহ বিভিন্ন দফতরের পেইজও সকালে বন্ধ করে দিয়েছিল ফেসবুক। অবশ্য পরে তারা দাবি করেছে, সরকারি পেইজ বন্ধ করা হয়েছিল ‘ভুল করে’।

অস্ট্রেলিয়া সরকার বলেছে, এই পদক্ষেপের ফলে ফেসবুকের গ্রহণযোগ্যতাই প্রশ্নবিদ্ধ হবে।

এ দ্বন্দ্বের সূত্রপাত অস্ট্রেলিয়া সরকারের প্রস্তাবিত একটি আইন নিয়ে, যা পাস হলে সংবাদ কনটেন্টের জন্য দেশটির প্রকাশকদেরও লাভের ভাগ দিতে বাধ্য থাকবে গুগল, ফেসবুকসহ অন্য প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো, যারা এ ধরনের কনটেন্ট প্রকাশ ও প্রচারের মাধ্যমে মুনাফা করে।

ফেসবুক ও গুগল বলে আসছিল, প্রস্তাবিত ওই আইন ইন্টারনেটের মৌলিক ধারণার সঙ্গেই সাংঘর্ষিক। অস্ট্রেলিয়া সরকার অন্যায্যভাবে তাদের ‘শাস্তির মুখে’ ফেলছে।

সেই অবস্থান থেকে কিছুটা নমনীয় হয়ে গুগল রুপার্ট মার্ডকের নিউজ করপোরেশনকে লাভের ভাগ দিতে সম্মত হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মাথায় ফেসবুক নিউজ কনটেন্ট বন্ধের পথে হাঁটল।

ওই আইনের প্রস্তাব গত বুধবার অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষের অনুমোদনও পেয়েছে। সরকার বিষয়টি সামনে এগিয়ে নেওয়ার অঙ্গীকারের কথা বলে আসছে।

দেশটির তথ্য-যোগাযোগ মন্ত্রী পল ফ্লেচার এবিসিকে বলেছেন, নিউজ কনটেন্টে এই নিষেধাজ্ঞার ফলে ফেসবুকের ভাবমূর্তি আর অবস্থানের ক্ষেত্রে কতটা প্রভাব ফেলবে সেটা তাদের খুব সতর্কতার সঙ্গে ভাবতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।